উজিরপুরে শিশুকে একাধিকবার ধর্ষণ

বৃহস্পতিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:১৪


নাসির শরীফ,উজিরপুর প্রতিনিধিঃ বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার শিকারপুরে এক শিশুকে চকলেট খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে ইউপি সদস্য মোঃ বাচ্চু সরদার। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।
ভুক্তভোগী ও পরিবার সুত্রে জানা যায় উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নের পূর্ব জয়শ্রী ২নং ওয়ার্ডের মৃত অহেদ আলী সরদারের ছেলে মুদি দোকানদার প্রভাবশালী লম্পট আহম্মদ আলী সরদার ওই গ্ৰামের নূরানী মাদ্রাসায় প্রথম জামাতের ছাত্রী(১২)কে চকলেট ও পাওয়ারুটি খাওয়ায়ে এবং বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে দোকানের পাশ্ববর্তী ছাগল পালনের ঘরে নিয়ে একমাস ধরে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক ৬ বার ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ করেছে ওই ছাত্রী। ঘটনার পর থেকে ধর্ষক পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। ভুক্তভোগী পরিবার আরো জানান বিষয়টি জানতে পেরে ইউপি সদস্য মোঃ বাচ্চু সরদারের কাছে বিচার দেন। এরপর ইউপি সদস্য ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য ভুক্তভোগী পরিবারকে বিষয়টি কাউকে জানাতে নিষেধ করেন এবং ধর্ষক আহম্মদকে কিছু দিনের জন্য বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যেতে বলেন। এদিকে শিশুর পরিবার লোকলজ্জা এবং ওই প্রভাবশালীদের ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। ছাত্রীর বড় বোন জানান তারা গরীব অসহায় হওয়ায় মামলা করতে সাহস পাচ্ছেনা। এমনকি মেম্বারের কাছে বিষয়টি জানালেও কোন বিচার পাইনি তারা। ছাত্রী জানান ছাগলের ঘরে নিয়ে বিভিন্ন সময় একাধিকবার ধর্ষণ করেছে  মুদি দোকানদার আহম্মদ সরদার। এছাড়াও বিষয়টি কাউকে জানালে ওই ছাত্রীকে হত্যার হুমকি দেয়। স্হানীয় একাধিক ব্যাক্তি জানিয়েছেন লম্পট আহম্মদ একাধিক নারী কেলেঙ্কারির ঘটনায় জড়িত রয়েছে। এছাড়া ইউপি সদস্য বাচ্চু ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। এ ব্যাপারে উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামরুল হাসান জানান বিষয়টি আমাদেরকে কেউ অবহিত করেননি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ওই লম্পটের দ্রুত গ্ৰেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন ভূক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসী।

এমএসি/আরএইচ